রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০৯:৪৩ পূর্বাহ্ন

ঠাকুরগাঁওয়ে স্কুলছাত্র হত্যা মামলায় ১জনের যাবজ্জীবন

জয় মহন্ত অলক, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি::
ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা মাতৃগাঁও এলাকার কলেজ ছাত্র জামিল আনছারি জুয়েল হত্যা মামলায় মাহাবুব আলম (৩৫) নামে একজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন অতিরিক্ত দায়রা জর্জ আদালত।

১৬ জানুয়ারী মঙ্গলবার বেলা ১২টায় ঠাকুরগাঁও অতিরিক্ত দায়রা জজ হায়দার আলী যাবজ্জীবনের এ রায় প্রদান করেন।

মামলার রায় সূত্রে জানাযায়, ২০১২ সালের ১৩ অক্টোবর সদর উপজেলা মাতৃগাঁও এলাকার নজরুল ইসলামের ছেলে কলেজ পড়–য়া জামিল আনছারি জুয়েল গরুর ঘাস কাঁটার জন্য বাড়ির পাশের জমিতে যায়। সে সময় পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী প্রতিবেশী আসামী মাহাবুব আলম ধান কাঁটার ধারালো কাস্তে দিয়ে পেছন থেকে এলোপাথারী আঘাত করে। জুয়েলের মাথায় একাধিক কোপ মারলে গুরুতর জখম হয় সে। জুয়েলের চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে আসলে মাহাবুব আলম ও তার সহযোগিরা পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন জুয়েলকে প্রথমে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে কতর্ব্যরত চিকিৎসক রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করলে পথিমধ্যে অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরনের জন্য মৃত্যু হয় তার।

পরে জুয়েলের বাবা নজরুল ইসলাম ঠাকুরগাঁও সদর থানায় মাহাবুব আলমসহ ৩ জনকে আসামী করে ওই বছরের ১৯ অক্টোবর একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ হত্যাকারী মাহাবুব আলমকে আটক করে। মামলাটির তদন্তকারী অফিসার এস.আই কামরুজ্জামান মিঞা ২০১৩ সালের ১ জানুয়ারি প্রাথমিক ভাবে অপরাধের সততা পেয়ে আসামীদের বিরুদ্ধে চার্জশীট দাখিল করেন।

আদালত দীর্ঘ সাক্ষ্য প্রমানের ভিত্তিতে মঙ্গলবার ঠাকুরগাঁও অতিরিক্ত দায়রা জজ হায়দার আলী ৩ জন আসামীর মধ্যে মাহাবুব আলম (৩৫) নামে একজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও আসামী গোলাম কিবরিয়াকে বেকসুর খালাস প্রদান করেন। ২ নং আসামী করিম ইতিপূর্বে মূত্যবরণ করেন বলে উল্লেখ্য করা হয়েছে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবি হিসেবে আব্দুল হামিদ ও নিহত জুয়েলের বাবা নজরুল ইসলাম উক্ত রায়ে সন্তোস প্রকাশ করেছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2024  Ekusharkantho.com
Technical Helped by Titans It Solution