সোমবার, ১৭ Jun ২০২৪, ১২:৩৮ অপরাহ্ন

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে আরেক পর্ণ তারকার আমন্ত্রণের অভিযোগ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: এ্যালানা ইভান্স নামে যুক্তরাষ্ট্রের আরেক পর্ণ তারকা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যৌনতায় যোগ দিতে আমন্ত্রণের অভিযোগ তুলে বলেছেন পর্ণ তারকা স্ট্রমি ড্যানিয়েলস ও প্রেসিডেন্ট তাকে একত্রে যৌনতার জন্যে তার হোটেলে ডেকেছিলেন। তবে ইভান্স সে আমন্ত্রণ প্রত্যাখ্যান করেন বলে দাবি করছেন।

এ্যালানা ইভান্স বলছেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও স্ট্রমি ‘হ্যাভ সাম ফান’ এমন আহবান জানান। ২০০৬ সালে আমেরিকান সেনচুয়ারি সেলিব্রেটি গলফ চ্যাম্পিয়ন অনুষ্ঠিত হয় নাভাদার এজউড তাহো লজে। ওই এলাকায় তখন অবস্থান করছিলেন ইভান্স। স্ট্রমি ড্যানিয়েলস তখন বেশ কয়েকবার ইভান্সকে ওই লজে আসার আমন্ত্রণ জানান। স্ট্রমি মি. ট্রাম্পের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছিলেন। ট্রাম্পের স্ত্রী মেলানিয়া তখন গর্ভবতী ছিলেন।

এ্যালানা ইভান্স বলেন, স্ট্রমি আমাকে অন্তত চার থেকে পাঁচবার ফোনে ডেকেছিল তাদের সঙ্গে যোগ দেওয়ার জন্যে। ফোনে তখন মি. ট্রাম্পের কণ্ঠস্বর শুনতে পাই। ট্রাম্প এও বলেছিলেন, ‘ওহ কাম অন এ্যালানা, লেটস হ্যাভ সাম ফান! কাম টু দি পার্টি, উই আর ওয়েটিং ফর ইউ’। ডেইলি বিস্ট’এর বরাত দিয়ে এ খবর প্রকাশ করেছে টাইমস অব ইসরায়েল ও ইসরায়েল ন্যাশনাল নিউজ।

এ্যালানা বলেন, ফোনে ট্রাম্পের কণ্ঠস্বর শুনে আমি বিস্মিত কণ্ঠে বলে উটি ওএমজি অর্থাৎ ও মাই গড। এটা ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার মত একজন মানুষের যথেষ্ট ক্ষমতা রয়েছে যে কারণে আমি কিছুটা ভীত হয়ে পড়ি। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে মনোনয়ন হওয়ার পূর্বে এমন জীবন যাত্রায় অভ্যস্ত ছিলেন ট্রাম্প। এবং আমি তাদের আমন্ত্রণ প্রত্যাখ্যান করি ও ফোন বন্ধ করে দেই।

পরের দিন ইভান্স স্ট্রমিকে জিজ্ঞেস করেন কিভাবে ট্রাম্পের সঙ্গে রাতযাপন করেন তিনি। জবাবে স্ট্রমি জানান, হোটেলের রুমেই ট্রাম্পের সঙ্গে তার রাত্রিবাস হয়। আমাকে সে ছবিও দেখায় স্ট্রমি। ফ্লোরিডায় ট্রাম্প তার একটি এ্যাপার্টমেন্টের চাবিও দিতে চান স্ট্রমিকে।

দি বিস্টের এ প্রতিবেদনে দাবি করা হয় ট্রাম্পের সঙ্গে স্ট্রমির যৌন সম্পর্ক আরো অন্তত দুটি সূত্র নিশ্চিত করেছে। তবে মি. ট্রাম্প তা অস্বীকার করে আসছেন। এমনকি স্ট্রমি তার বইতে ট্রাম্পের সঙ্গে রাত্রিবাসের কথা লিখলেও পরবর্তীতে তা অস্বীকার করেন।

গত শুক্রবার ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, স্ট্রমির মুখ বন্ধ করার জন্যে মি. ট্রাম্প তাকে ১ লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলার দেন। ট্রাম্পের আইনজীবী এ অভিযোগ নাকচ করে দিয়েছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2024  Ekusharkantho.com
Technical Helped by Titans It Solution