বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৩:৪৩ পূর্বাহ্ন

সারাদেশে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলে ব্যাপক ধরপাকড়

ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অরফানেজ ট্রাষ্ট দূর্নিতি মামলার রায়ে সাজার দেয়ার প্রতিবাদে সারাদেশের বিভিন্ন উপজেলায় বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা ৯ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার জুম্মাবাদ বিক্ষোভ মিছিল করেছে। এসময় পুলিশ মিছিলে বাধা দিয়ে অসংখ্য নেতাকর্মীকে আটক করে। বিভিন্ন জেলা উপজেলা থেকে আমাদের প্রতিনিধিরা জানান-

শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি:

শ্রীনগরে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অরফানেজ ট্রাষ্ট দূর্নিতি মামলার রায়ে সাজার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছে শ্রীনগর উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠন। বেলা ১১টায় বিএনপির নেতা কর্মীরা শ্রীনগর সরকারী কলেজ গেইট এলাকা থেকে উপজেলা বিএনপির যুগ্ন সাধারন সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন মুকুল,যুবদলের সভাপতি জয়নাল আবেদীন মৃধা জেমস,আলীনুর হোসেন চঞ্চল, ছিদ্দিকুর রহমান মিলন,স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা শামিম ইমাম সাচ্চুর নেতৃত্বে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে শ্রীনগর ইসলামী ব্যাংকের সামনে এসে শেষ হয়। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা শহিদুল ইসলাম ,আহসানুল হক,আবুল মৃধা, সাবেক ছাত্রনেতা মাহবুবুর রহমান মিন্টু, জামিল হোসেন বিপ্লব, লিমন,উপজেলা ছাত্রদলের সিনিয়র সহ সভাপতি ফারুক মৃধা, এমদাদুল হক রজিন, খাদিমুল ইসলাম অপু,নুরু,হৃদয় প্রমুখ
ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহে পুলিশের নাশকতা বিরোধী অভিযানে বিএনপি জামায়াত নেতাকর্মী সহ ৫৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ৮ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার দিনগত রাত থেকে শুক্রবার ভোর পর্যন্ত পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা বিভিন্ন মামলার এজাহারভুক্ত আসামি।
ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান জানান, জেলাব্যাপী পুলিশের নাশকতা বিরোধী অভিযান চলমান রয়েছে। অভিযানের অংশ হিসাবে জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে ৫ জামায়াত ও ১৬ বিএনপি নেতাকর্মী সহ ৫৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় উদ্ধার করা হয় ৬ টি ককটেল। গ্রেফতারকৃতদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হবে।

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের কঠোর নিরাপত্তা বেষ্টনী থাকার পরেও চোখ ফাঁকি দিয়ে বিক্ষোভ করেছে জেলা বিএনপি। জুম্মার নামাজ শেষে সিদ্ধিরগঞ্জে জেলা বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ের সামনের সড়কে বেগম খালেদা জিয়ার সাজার রায়ের প্রতিবাদ এবং মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।
জেলা বিএনপি’র সহ-সভাপতি মনিরুল ইসলাম রবি নেতৃত্বে উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপি’র সহ-সভাপতি ব্যারিষ্টার পারভেজ আহম্মেদ, জেলা যুবদলের সাবেক সাধারন সম্পাদক আশরাফুল হক রিপন, সোনারগাঁ পৌর বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হুমায়ন কবির রফিক, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা বিএনপি’র যুগ্ম আহ্বায়ক মাজহারুল হক ময়ুর, বিএনপি নেতা রিয়াজুল ইসলাম, আহাদ, গোলজার হোসেন, শহীদউল্লাহ, জাহাঙ্গীর আক্তার, রাসেল, ছাত্রদল নেতা ইমন ও রাব্বী প্রমূখ ।
বিক্ষোভ শেষে নেতৃবৃন্দ বলেন, বেগম খালেদা জিয়া একাধীকবার বাংলাদেশে গণতান্ত্রিক ভাবে নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী। তার স্বামী শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীর উত্তম মহান স্বাধীনতার ঘোষক। মুক্তিযুদ্ধ ও দেশের মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় বেগম খালেদা জিয়ার অসামান্য অবদান রয়েছে। সেই নেতা বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা ও জাল-জালিয়াতি করে সৃজন করা মামলায় বর্তমান অবৈধ দখলদার সরকার সাজা দিয়ে গণতন্ত্রকে চিরতরে নির্বাসনে পাঠানোর গভীর ষড়যন্ত্র বাস্তবায়নে নেমেছে। খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে এই মিথ্যা মামলার রায় এদেশের ষোল কোটি মানুষ ঘৃণাভরে প্রত্যাখান করেছে।
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি :
বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমায়ের বিরুদ্ধে পরিকল্পিত ও ষড়যন্ত্রমূলক সাজা ঘোষনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছে নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদলের নেতাকর্মীরা। বিকাল ৩ টায় আলাউদ্দিন খান ষ্টেডিয়াম থেকে নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদলের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে। মিছিলটি নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের সামনে এলে পুলিশ দুই দিক থেকে অতর্কীত লাঠিচার্জ করে যুবদলের ৪ কর্মীকে আটক করে। পুলিশের লাঠিচার্জে মহানগর বিএনপি নেতা নুরুল হক চৌধুরী দিপু, যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক আক্তার হোসেন খোকন, মহানগর যুবদল নেতা ইউনুস খান বিপ্লব, আল-আমিন খান, জুলহাস ও রাসেল মনির আহত হয়। মিছিলে আরো উপস্থিত ছিলেন, মহানগর যুবদল নেতা মাহাবুব হাসান জুলহাস, আল-মামুন, আকতার অপু, ডা. মুসা, মঞ্জু মিয়া আফতাব, রাসেল মনির প্রমুখ।
মহানগর যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক আক্তার হোসেন খোকন এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানান।

খুলনা প্রতিনিধিঃ
খুলনা মহানগর বিএনপি সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জুসহ ২৮ নেতার নাম উল্লেখ পূর্বক অজ্ঞাত আরও ৬০/৭০ জনকে আসামি করে নাশকতার মামলা দায়ের করা হয়েছে। শুক্রবার খুলনা থানার এস আই সুজিত মিস্ত্রী বাদী হয়ে খুলনা সদর থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় বৃহস্পতিবার আটক হওয়া ১১ জনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে খুলনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান জানান, রাস্তা অবরোধ করে জনদুভোর্গ সৃষ্টি, যানবাহন ভাংচুর এবং পুলিশেরে কাজে বাধাদানসহ নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে এই মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। তবে, তিনি কোন আসামির নাম প্রকাশ না করলেও বৃহস্পতিবার আটক হওয়া নগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাহারুজ্জামান মোর্ত্তজাসহ ১১জনকে এই মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন।
এদিকে পুলিশের দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে, মামলায় মহানগর বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জুর নাম রয়েছে। তবে সাধারণ সম্পাদক খুলনা সিটি মেয়র মনিরুজ্জামান মনির নাম নেই।
এদিকে, আজ জুম্মার নামাজের পর বিএনপি কার্যালয়ে সামনে কেন্দ্র ঘোষিত বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হবে বলে মহানগর বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু জানিয়েছেন।

খুলনা প্রতিনিধিঃ
বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও খুলনা মহানগর সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দেয়া রায়কে দেশের মানুষ ঘৃণা ভরে প্রত্যাখ্যান করেছে। এক ব্যক্তির প্রতিহিংসার রাজনীতি চরিতার্থ করতেই নি¤œ আদালতকে ব্যবহার করে এ রায় এসেছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
বেগম খালেদা জিয়াকে সাজা দেয়ার প্রতিবাদে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে শুক্রবার বিকেলে খুলনা মহানগর বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন। নগরীর কে ডি ঘোষ রোডস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন, বেগম খালেদা জিয়া বিরুদ্ধে দেয়া রায় জনগনকে বেদনাহত করলেও নেত্রীর নির্দেশে তারা শান্তিপূর্ণ ও সংঘাতহীন প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করছেন। কিন্ত নেতাকর্মীদের এই সহনশীলতাকে দূর্বলতা মনে করলে বিনা ভোটের সরকার ভুল করবে। বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান তথা বিএনপিকে বাইরে রেখে দেশে এক তরফা নির্বাচন করার কোন তৎপরতা শুরু হলে প্রয়োজনে নেতাকর্মীরা দেশ অচল করে দেবে।
তিনি বলেন, নয় বছরের অবৈধ শাসনকালে যারা ব্যাংক-বীমা-শেয়ার বাজারসহ সকল আর্থিক খাত থেকে ৯০ হাজার কোটি টাকা লুট করেছেন, তাদের মুখে বড় কথা, বড় সবক মানায় না।
সমাবেশে অন্যান্য বক্তারা বলেন, খুলনা বিএনপির নেতাকর্মীরা রাজনৈতিক কর্মসূচি পালন করেছে। তারা কোন সহিংসতা কিংবা নাশকতা করেনি। এ ঘটনায় বিএনপির শীর্ষ নেতৃবৃন্দসহ কর্মীদের নামে খুলনা থানায় মামলা দায়ের এবং দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও নগর সিনিয়র সহ সভাপতি সাহারুজ্জামানা মোর্ত্তজা, প্রথম যুগ্ম সম্পাদক অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, সহ দপ্তর সম্পাদক শামসুজ্জামান চঞ্চলসহ গত চার দিনে গ্রেফতার ২৫ নেতাকর্মীকে গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা জানান। অবিলম্বে তাদের নিঃর্শত মুক্তি এবং নেতাকর্মীর বাড়ি বাড়ি তল্লাশির নামে হয়রানি বন্ধের জোর দাবি জানান।
বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান মুরাদের পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন মেয়র মনিরুজ্জামান মনি, মীর কায়সেদ আলী, ফখরুল আলম, অধ্যাপক আরিফুজ্জামান অপু, সিরাজুল হক নান্নু, শফিকুল আলম তুহিন, আজিজুল হাসান দুলু, জি এম রফিকুল হাসান, শরিফুল ইসলাম বাবু প্রমুখ। সমাবেশে বিশেষ দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন ওলামা দলের নেতা হাফেজ শফিকুল ইসলাম।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2024  Ekusharkantho.com
Technical Helped by Titans It Solution