মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৫১ অপরাহ্ন

রাশিয়াকে নতুন অস্ত্র প্রতিযোগিতায় টেনে আনতে চায় পশ্চিমারা: পুতিন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, একুশের কণ্ঠ:: রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন দাবি করেছেন, পশ্চিমারা তার দেশকে নতুন অস্ত্র প্রতিযোগিতায় টেনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে।

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মাত্র দুই সপ্তাহ আগে বৃহস্পতিবার বার্ষিক স্টেট অব দ্য নেশন ভাষণে এই অভিযোগ করেন পুতিন।

রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আমরা বুঝতে পারছি, পশ্চিমারা আমাদের অস্ত্রের প্রতিযোগিতায় টেনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে। ১৯৮০-এর দশকে সোভিয়েত ইউনিয়নের বিরুদ্ধে তারা যে কৌশলটি অবলম্বন করে ছিল, ঠিক সেই কৌশলের পুনরাবৃত্তি ঘটাতে চাইছে তারা।’

পুতিন হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘তাদের শেষ পর্যন্ত বুঝতে হবে যে আমাদের কাছেও অস্ত্র আছে এবং তারা এটি সম্পর্কে জানে। আমি আবারও বলেছি- আমাদের কাছে এমন অস্ত্র রয়েছে যা তাদের ভূখণ্ডে যেকোন লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম।’

ন্যাটোতে সুইডেন এবং ফিনল্যান্ডের যোগদানের পর রাশিয়ার পশ্চিমাঞ্চলে সশস্ত্র বাহিনীকে আরও শক্তিশালী করা হচ্ছে উল্লেখ করে পুতিন বলেন, রাশিয়ার কৌশলগত পারমাণবিক বাহিনী পূর্ণ প্রস্তুতির অবস্থায় রয়েছে। ইতোমধ্যেই সেনাদের কাছে ‘সারমাট’ ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ করা হয়েছে এবং রাশিয়া আরও বেশ কয়েকটি ‘প্রতিশ্রুতিবদ্ধ অস্ত্র ব্যবস্থা’ নিয়ে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

এছাড়াও রাশিয়া কৌশলগত স্থিতিশীলতার ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সংলাপের জন্য প্রস্তুত বলে মন্তব্য করেন পুতিন। তবে যুক্তি দিয়েছিলেন, সংলাপের প্রস্তাব দেওয়ার সময় মস্কোকে পরাজিত করার ওয়াশিংটনের প্রচেষ্টা ছিল ‘কপটতাপূর্ণ’।

পুতিন আরও দাবি করেছেন, রাশিয়া ২০২৩ সালে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে জি৭ দেশগুলোকে ছাড়িয়ে গেছে এবং তিনি আত্মবিশ্বাসী যে রাশিয়া ‘অদূর ভবিষ্যতে বিশ্বের চারটি বৃহত্তম অর্থনীতির একটি হয়ে উঠবে’। রাশিয়ার অর্থনীতির বৃদ্ধিকে জনসংখ্যার আয় বৃদ্ধিতে রূপান্তরিত করা উচিত। একই সঙ্গে ২০৩০ সালের মধ্যে মাসিক ন্যূনতম মজুরি প্রায় দ্বিগুণ হয়ে ৩৫ হাজার রুবেলে (৩৮৪ ডলার) দাঁড়াবে।

সূত্র: আরটি, আলজাজিরা, আনাদোলু

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2024  Ekusharkantho.com
Technical Helped by Titans It Solution