বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ১০:৪৬ অপরাহ্ন

বান্দরবানের ডিসির বিরুদ্ধে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের মামলা

বশির আহমেদ, বান্দরবান প্রতিনিধি॥ বান্দরবানে বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি পদ নিয়ে জেলা প্রশাসকসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যাশৈহ্লা।

বুধবার দুপুরে বান্দরবানের যুগ্ম জেলা জজ আদালতে মামলাটি দায়ের করা হয়।

মামলায় জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক, চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান, চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের বিদ্যালয় পরিদর্শক, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সহকারী সচিব এবং ডনবস্কো উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে আসামি করা হয়।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, জেলা শহরে দুই একর জমির ওপর ১৯৫৮ সালে ডনবস্কো উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হয়। ১৯৮০ সালে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি এমপিওভুক্ত হয়। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বিদ্যালয়টি মিশনারি কর্তৃপক্ষ পরিচালনা করে। ১৯৭৭ সালের পহেলা জুলাই বিদ্যালয় পরিচালনা ও সার্বিক ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব স্থানীয় প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করা হয়। বিদ্যালয়টি ম্যানেজিং কমিটির বিধিমালা ২০০৯-এর যথাক্রমে ৪ এবং ৭ ধারা মোতাবেক পরিচালিত হয়ে আসছে। পার্বত্য শান্তি চুক্তির আলোকে জেলার মাধ্যমিক শিক্ষার কার্যক্রম পার্বত্য জেলা পরিষদের কাছে হস্তান্তরিত ও ন্যস্ত বিভাগ। এ ছাড়া ওই চুক্তির আলোকে ২০১৪ সালের ২৬ মে পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় একটি চুক্ষিও স্বাক্ষরিত হয়। দীর্ঘদিন ধরে ডনবস্কো উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি হিসেবে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যাশৈহ্লা দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

পার্বত্য জেলা পরিষদের (বাদীপক্ষের) আইনজীবী বাসিং থোয়াই বলেন, পার্বত্য চুক্তির আলোকে মাধ্যমিক বিভাগ পার্বত্য জেলা পরিষদের কাছে হস্তান্তরিত ন্যস্ত বিভাগ। তার পরও শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে গত বছরের ৩০ নভেম্বর, জেলা প্রশাসক কার্যালয় থেকে গত ২২ জানুয়ারি, চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের বিদ্যালয় পরিদর্শক অফিস থেকে ২৫ জানুয়ারি প্রেরিত পত্রে বান্দরবানের জেলা প্রশাসককে বান্দরবান ডনবস্কো উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির (অ্যাডহক) সভাপতি মনোনীত করা হয়। পত্রসমূহ আইনের বিধানমতে বেআইনি এবং তিনটি স্মারকে প্রেরিত পত্রসমূহ চুক্তির আইনের লঙ্ঘন। তাই পত্রসমূহ বাতিল ঘোষণার জন্য মামলাটি দায়ের করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক বলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আদেশে ডনবস্কো উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি গঠন এবং যাবতীয় ব্যাংক লেনদেন বন্ধ রাখার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু পার্বত্য জেলা পরিষদ এবং বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মন্ত্রণালয়ের আদেশ মানতে নারাজ। তারা বিষয়টি না মানলে আমি কী করব। তবে মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগের উচ্চ বিদ্যালয়গুলো পার্বত্য জেলা পরিষদের কাছে হস্তান্তরের বিষয়টি জানা নেই বলে জানান জেলা প্রশাসক।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2024  Ekusharkantho.com
Technical Helped by Titans It Solution