মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৫৪ অপরাহ্ন

অমর একুশে বইমেলার পর্দা নামছে আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক, একুশের কণ্ঠ:: অমর একুশে বইমেলার পর্দা নামছে আজ। শনিবার (২ মার্চ) বিকেলে বাংলা একাডেমী প্রাঙ্গণ ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে মেলার সমাপনী অনুষ্ঠান হচ্ছে। শেষ দিনে মেলা শুরু হবে বেলা ১১টায় এবং চলবে রাত ৯টা পর্যন্ত।

বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) বইমেলা শেষ হয়ে যাওয়ার কথা থাকলেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ অনুমোদনক্রমে মেলার সময় বাড়ানো হয় আরও দুই দিন। শেষ দুই দিন সবাই আশা করেছিলেন, হয়তো বেচাবিক্রি ভালো হবে। কিন্তু বৃহস্পতিবার রাতে বেইলি রোডে বহুতল ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় শোকের ছায়া যেন পড়েছিল মেলায়ও। কারণ শুক্রবার হলেও মেলায় ছিল না আগের মতো উপচে পড়া ভিড়। যারা এসেছিলেন তাদের মধ্যে তো অবশ্যই, লেখক-প্রকাশকদের মধ্যেও ছিল শোকের ছায়া।

কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলন বলেন, একসঙ্গে এত মানুষের মৃত্যু কষ্টের। ধারণা ছিল ছুটির দিনে পাঠকের ঢল নামবে। তবে বেইলি রোডের ঘটনায় অনেকেই আর মেলা-মুখী হননি।

আজ শনিবার শেষ দিনে মানুষ আবার মেলা জমিয়ে তুলবেন বলে আশা সবার। মেলার সমাপনী দিনে বিকেল পাঁচটায় সমাপনী অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা ভাষণ প্রদান করবেন একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা। প্রতিবেদন উপস্থাপন করবেন ‘অমর একুশে বইমেলা ২০২৪’-এর সদস্য-সচিব ডা. কে এম মুজাহিদুল ইসলাম। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা ও সংস্কৃতিবিষয়ক উপদেষ্টা ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব খলিল আহমদ। সভাপতিত্ব করবেন বাংলা একাডেমির সভাপতি কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন। অনুষ্ঠানে চিত্তরঞ্জন সাহা স্মৃতি পুরস্কার, মুনীর চৌধুরী স্মৃতি পুরস্কার, রোকনুজ্জামান খান দাদাভাই স্মৃতি পুরস্কার এবং শিল্পী কাইয়ুম চৌধুরী স্মৃতি পুরস্কার প্রদান করা হবে।

তবে একটা বিষয় লক্ষ্যণীয়। এবারের বইমেলার জন্য বড় আশীর্বাদ হয়ে এসেছে মেট্রোরেল। যার কারণে অন্য বছরের তুলনায় এবার মেলায় বেড়েছে মানুষের সমাগম। কারণ মেট্রারেলের কল্যাণে রাজধানীর উত্তরাসহ নানান জায়গা থেকে মেলায় মানুষ এসেছে। সেটা অন্য সময় যানজটের ভয়ের কারণে মানুষ মেলায় আসতো না সাধারণত। যার ফলে, এবার মেলায় বিক্রি বেড়েছে অন্যান্য বছরের তুলনায় কয়েকগুণ।

বৈশ্বিক করোনা মহামারি ও যানজট এবং অর্থনৈতিক মন্দার কারণে গত কয়েক বছর বইমেলায় ক্রেতা ও দর্শনার্থীদের যে ভাটা পড়েছিল এবার মেট্রোরেলের কল্যাণে সেটি লাঘব হয়েছে। শুরু থেকেই ক্রেতা-দর্শনার্থীদের জমজমাট উপস্থিতিতে সরগরম ছিল বইমেলার প্রতিটি দিন।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2024  Ekusharkantho.com
Technical Helped by Titans It Solution