বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০২:৫৫ পূর্বাহ্ন

অমর একুশে গ্রন্থমেলার উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: অমর একুশে গ্রন্থমেলা ও আন্তর্জাতিক সাহিত্য সম্মেলনের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে এক অনুষ্ঠানে তিনি এই গ্রন্থমেলা উদ্বোধন করেন।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন। এ সময় তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ ১২টি ভাষায় অনুবাদ করা হয়েছে। জাতির পিতার অসমাপ্ত আত্মজীবনীও বিভিন্ন ভাষায় অনুবাদ হয়েছে। এতে করে বিশ্ববাসী জানতে পারছে আমাদের সম্পর্কে, বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে। বঙ্গবন্ধু আমাদের আত্মপরিচয়ের সুযোগ দিয়ে গেছেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ১৬ কোটি মানুষের সকল চাহিদা পূরণ করা সম্ভব নয়। তবে আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করলে কিছু অর্জন সম্ভব। আর আমাদের সেটা হয়েছে। ইতোমধ্যে আমরা বিশ্বের দরবারের মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছি।

তিনি বলেন, অশুভ পথে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলকারীরা সংস্কৃতি চর্চা করতে পারে না। এদের মানসিকতা একটু ভিন্ন। আমরা কিন্তু আমাদের ভাষা ও সংস্কৃতি চর্চা ও এর ওপর গবেষণার ব্যবস্থা করছি। গ্রন্থমেলা শুধু বেচাকেনার জন্য নয়, এটি আকর্ষণ করে, জ্ঞান চর্চার দ্বার উন্মুক্ত করে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এমিরেটাস অধ্যাপক অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন- সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি, সুইডেনের কবি ও লেখক আর্নি জনসন, মিশরের কবি ও সাংবাদিক ইবরাহীম এ মাসরি, ক্যামেরুনের কবি ও অধ্যাপক জয়েস এসোনটেনডেন্ট, যুক্তরাজ্যের কবি এডমিস মিডোজ, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব ইবরাহীম হোসেন খান, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামছুজ্জামান খান প্রমুখ। গ্রন্থমেলা উদ্বোধন শেষে প্রধানমন্ত্রী ১২ জনকে ‘বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার’ তুলে দেন।

১০টি শাখায় ২০১৭ সালের পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন- মোহাম্মদ সাদিক ও মারুফুল ইসলাম (কবিতা), মামুন হুসাইন (কথাসাহিত্য), মাহবুবুল হক (প্রবন্ধ), রফিকউল্লাহ খান (গবেষণা), আমিনুল ইসলাম ভুইয়া (অনুবাদ সাহিত্য), কামরুল হাসান ভূঁইয়া ও সুরমা জাহিদ (মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক সাহিত্য), শাকুর মজিদ (আত্মজীবনী/স্মৃতিকথা), মলয় ভৌমিক (নাটক), মোশতাক আহমেদ (বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী) এবং ঝর্ণা দাশ পুরকায়স্থ (শিশুসাহিত্য)।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2024  Ekusharkantho.com
Technical Helped by Titans It Solution